সাম্প্রতিককালে দেশে মাদকাসক্তি একটি ভয়াবহ জাতীয় সামাজিক সমস্যা হিসাবে দেখা দিয়েছে। দেশের একটি বিপুল জনগোষ্টি বিশেষ করে তরুণ সমাজ এই আসক্তিতে জড়িয়ে পড়ছে এবং দেশের আগামী দিনের সম্ভাবনাকে সংকাটাপন্ন করে তুলছে। এ বিষয়ে পরিচালিত সমীক্ষায় প্রাপ্ত পরিসংখ্যান বলছে, দেশের হাসপাতালগুলোর বহির্বিভাগে দৈনন্দিন চিকিৎসার জন্য আসা রোগীর মধ্যে শতকরা ১০ ভাগ রোগীই মাদকাসক্ত বিষয়ক। মাদকাসক্তিতে আক্রানন্ত বিভিন্ন ক্যাটাগরির জনগোষ্ঠির মধ্যে ছাত্রদের হার শতকরা ৫৬% এবং মাদকাসক্ত মানুষদের বয়সের গড় ২২ বছর।

ফলে একথা পরিস্কার যে ছাত্র সমাজ তথা তরুনরাই আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনার মধ্যভাগে বিরাজ করছে যা একটি নিতান্ত ভয়াবহতার ইংগিত। সাম্প্রতিক সময়ে বাংলাদেশ মাদক পাচারের নিরাপদ রুট হিসাবে বিবেচিত হচ্ছে । ভারত থেকে পাচারকৃত মাদক দ্রব্য বাংলাদেশের আকাশপথ ও সমুদ্রপথের মাধ্যমে বিদেশে পাচার হয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের অন্যান্য সীমান্তবর্তী অঞ্চলের ন্যায় কুমিল্লা, ফেনী ও বৃহত্তর চট্টগ্রামের পার্বত্যাঞ্চল মাদক পাচার ও বানিজ্যের জন্য অতি সংবেদনশীল এলাকা। ফেনী ইউনিভার্সিটির এ অঞ্চলে অবস্থান ও আলোচ্য প্রেক্ষিত বিবেচনা এবং মাদক নিয়ন্ত্রণে সরকারি উদ্যোগের অংশ হিসাবে ফেনী ইউনিভার্সিটিতে এ বিষয়ে নিয়মিত কর্মকান্ড পরিচালনা ও ছাত্রদের  মধ্যে সচেতনতা বৃদ্ধির প্রয়োজনীয়তা আমরা উপলদ্ধি করি।   

এ প্রেক্ষিতে গত ১৮ অক্টোবর, ২০১৭ ফেনী ইউনিভার্সিটির মিলনায়তনে “মাদকের বিরুদ্ধে সচেতনতা বৃদ্ধি” বিষয়ে একটি আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। ইউনিভার্সিটির উপাচার্য প্রফেসর ড. মোঃ সাইফুদ্দিন শাহ্ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ট্রাস্টি বোর্ডের কার্যকরী কমিটির সদস্য সচিব ডাঃ এ.এস.এম. তবারক উল্লাহ চৌধুরী বায়েজিদ। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইউনিভার্সিটির কোষ্যধ্যক্ষ প্রফেসর তায়বুল হক, ডেপুটি রেজিস্ট্রার ড. মির্জা আতাউর রহমান, ব্যবসা প্রশাসন বিভাগের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ আবুল কাশেম, ভারপ্রাপ্ত ছাত্র উপদেষ্টা মোহাম্মদ আবুল খায়ের এবং ফেনী ইউনিভার্সিটি মাদক বিরোধী কমিটির আহ্বায়ক ও ইউনিভার্সিটির ভারপ্রাপ্ত প্রক্টর মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান। উক্ত আলোচনা সভায় ইউনিভার্সিটির শিক্ষক, কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ বিপুল সংখ্যক ছাত্র-ছাত্রী উপস্থিত ছিলেন।

প্রধান অতিথি ডাঃ এ.এস.এম. তবারক উল্লাহ চৌধুরী বায়েজিদ মেডিক্যাল সায়েন্স এর আলোকে মাদকের ভয়াবহতা তুলে ধরেন। মাদকের ছোবলে শারীরিক, মানসিক, আর্থিক ও সামাজিক ক্ষতি সম্পর্কে তিনি তাঁর বক্তব্যে বিস্তারিত আলোকপাত করেন।

অনুষ্ঠানে বক্তাগণ ছাত্র-ছাত্রীদের মাদকের বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার আহবান জানান এবং বরাবরের মত ইউনিভার্সিটির ক্যাম্পাস মাদক মুক্ত রাখার প্রত্যয় ব্যক্ত করেন।

কম্পিউটার সায়েন্স বিভাগের শিক্ষক বুসরাত জাহানের সঞ্চালনায় উক্ত অনুষ্ঠানে ফেনী ইউনিভার্সিটি মাদক নিয়ন্ত্রন কমিটির আহ্বায়ক মোহাম্মদ মনিরুজ্জামান স্বাগত বক্তব্যে উক্ত কমিটির কার্যক্রম ও ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা তুলে ধরেন এবং এ বিষয়ে সকলের সার্বিক সহায়তা প্রত্যাশা করেন।